ইঞ্জিন কাটতেই বেরোলো ৬০টি তেলের বোতল, তাতে কোটি টাকার ইয়াবা!

title
এক মাস আগে
কক্সবাজারের রামু বাইপাস সড়কে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ ইয়াবাসহ এক মাদক কারবারিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)। পুলিশ সুপার মো. হাসানুজ্জামান পিপিএমের নির্দেশনায় জেলা গোয়েন্দা শাখার অফিসার ইনচার্জ সাইফুল আলমের নেতৃত্বে গতকাল মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে এ অভিযান চালানো হয়। গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে রামু থানাধীন রামু-মরিচ্যারোডে খুনিয়াপালং ইউনিয়ন অফিসের সামনে চেকপোস্ট বসিয়ে নির্দিষ্ট একটি পিকআপ (চট্ট মেট্রো-ন ১১-৯২৯৮) আটকান ডিবি পুলিশের সদস্যরা। পরে পিকআপচালককে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের পর তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে তেলের ট্যাংকথেকে ৩৯ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। বিজ্ঞাপন পিকআপচালকের নাম জহির (৩০)। তিনি চট্টগ্রামের লোহাগাড়ার কাউয়ারখালীগুইয়াপাড়া গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে। পুলিশ জানায়, পিকআপটি আটকেপরে স্থানীয় ওয়ার্কশপের মেকানিকের সহায়তায় তেলের ট্যাংকখোলা হয়। গ্রাইন্ডার মেশিন দিয়ে কেটে ভেতরে ৬০টি সরিষার তেলের বোতলে রক্ষিত ৩৯ হাজার পিস ইয়াবাপাওয়া যায়। এ সময় মাদক পরিবহনে ব্যবহৃত পিকআপটিকে জব্দ করা হয়েছে। আটক করা হয়েছে চালককে। উদ্ধারকৃত ইয়াবার আনুমানিক মূল্য এককোটি ২০ লাখ টাকা। ঘটনায় নেতৃত্বদানকারী ডিবির অফিসার ইনচার্জ সাইফুল আলম জানান, অভিনব কায়দায় পিকআপে করে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা পাচার হবে- এ রকম গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে রামু-মরিচ্যারোডে চেকপোস্ট বসানো হয়। পরে পিকআপসহ মাদক কারবারি জহিরকে আটক করি। তার স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে পিকআপের তেলের ট্যাংকেবিশেষ কায়দায় সরিষার তেলের বোতলে রাখা ৩৯ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনার সঙ্গেজড়িত চক্রের অন্যান্য আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত আছে।