পোল্যান্ডে নাৎসি স্যালুট দেওয়ায় ডাচ পর্যটক আটক, জরিমানা

title
৪ মাস আগে
পোল্যান্ডের দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধকালীন কুখ্যাত অশউইৎজ বন্দিশিবিরে নাৎসি কায়দায় স্যালুট দেওয়ার কারণে একজন ডাচ পর্যটককে আটক করা হয়েছে। স্থানীয় পুলিশ আটকের বিষয়টি জানিয়ে বলেছে আদালত তাকে জরিমানা করেছেন। জার্মানি নাৎসি বাহিনীর ব্যবহৃত নির্যাতন কেন্দ্রটির প্রবেশদ্বারের সামনে ২৯ বছর বয়সী নারী পর্যটক নাৎসি কায়দায় স্যালুট দিয়েছেন। স্বামীকে দিয়ে ছবি তোলানোর সময় তিনি এ কাজ করেন। বিজ্ঞাপন ওই নারীর নাম প্রকাশ করা হয়নি। তার বিরুদ্ধে নাৎসি মতাদর্শ প্রচার চালানোর অভিযোগ আনা হয়েছে। প্রসিকিউটররা তাকে জরিমানা করেন এবং তিনি তা দিতে রাজিও হয়েছেন। পোল্যান্ডের বার্তা সংস্থা পিএপি-কে ওই নারী বলেছেন, তার কাজটি ছিল খারাপ রকমের রসিকতা। নিছক ছবি তোলার জন্য ওই পোজ দিয়েছিলেন তিনি। নাৎসি বাহিনীর চরম নৃশংসতার শিকার পোল্যান্ডে এ ধরনের অভিযোগে বিদেশি আটকের ঘটনা এটি প্রথম নয়। দেশটিতে এ ধরনের অভিযোগে দুই বছরের বেশি কারাদণ্ড হতে পারে। ২০১৩ সালে তুরস্কের দুই শিক্ষার্থী নাৎসি কায়দায় স্যালুট দিয়ে ছয় মাস জেল খেটেছেন। তাদেরকে পোল্যান্ডে তিন বছরের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। জরিমানাও গুনতে হয়। অশউইৎজ বন্দিশিবিরে সংখ্যাগরিষ্ঠ ইহুদিসহ লাখ লাখ মানুষকে বিষাক্ত গ্যাসপ্রয়োগ, অনাহার, অতিরিক্ত পরিশ্রম ইত্যাদি কায়দায় হত্যা করেছিল হিটলারের নাৎসি বাহিনী। হলোকস্ট নামে পরিচিত ইহুদি নির্মূল করার অভিযানে ইউরোপের ৬০ লাখ সাধারণ ইহুদিকে হত্যা করা হয়। এর এক কেন্দ্রবিন্দু ছিল অশউইৎজ। সূত্র: বিবিসি।