তারা ছিল খেলার সাথী, ছড়ার পানিতে ডুবে মর্মান্তিক মৃত্যু

title
এক মাস আগে
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের রহিমপুরে ধলাই নদী-সংলগ্ন কালাছড়া স্লুইসগেট এলাকায় পানিতে ডুবে নিরালা উড়াং (১১) ও রিসিতা উড়াং (১০) নামে দুই শিশুকন্যার মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। একজন পাথরটিলা এলাকার শিবচরণ উড়াংয়ের মেয়ে। অপরজন বাবুল উড়াংয়ের মেয়ে। তারা দুজনই মৃত্তিঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী। বিজ্ঞাপন গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে ঘটনা ঘটলেও সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় স্থানীয়রা ছড়ার পানি থেকে লাশ উদ্ধার করেন। এ ঘটনায় দুই পরিবার ও এলাকায় মাতম চলছে। স্থানীয় ইউপি সদস্য ধনা বাউড়ী জানান, মৃত্তিঙ্গা চা বাগানের নিরালা ও রিসিতা দুজন একে অপরের খেলার সাথি। প্রতিদিনের মতো মঙ্গলবার বিকেলে কালাছড়া নামক ছড়ায় গোসল করতে যায় তারা। কিন্তু সন্ধ্যা গড়ালেও তারা বাড়িতে না ফেরায় দুই পরিবার খোঁজ শুরু করে। খোঁজ না পেয়ে স্থানীয় চা শ্রমিকদের জানালে তারা শিশু দুটির সন্ধানে বের হন। খোজাঁখুজির একপর্যায়ে ওই এলাকার ধলাই নদী সংলগ্ন পাহড়ি ছড়া কালাছড়ার স্লুইসগেট এলাকার পানিতে তাদের ভাসমান দেহ মেলে। উদ্ধার করে চা বাগানের হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার দুজনকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহত নিরালার বাবা বাবুল উড়াং বলেন, তার মেয়ে একই এলাকার রিসিতার খেলার সাথিছিল। তারা দুজনই একসঙ্গে মৃত্তিঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ত। মৃত্তিঙ্গা চা বাগান হাসপাতালের মেডিক্যাল অফিসার ডা. সাধন বিকাশ চাকমা বলেন, স্থানীয়রা উদ্ধার করে শিশু দুটিকে হাসপাতালে নিয়ে এলেপরীক্ষা করে দেখা যায়, ততক্ষণে দুজনই মারা গেছে। ঘটনাস্থলই তাদের মৃত্যু হয়েছে বলে ডাক্তার নিশ্চিত করেছেন।