শ্রীবরদীতে ট্রিপল মার্ডার: দা-চাকুসহ গ্রেপ্তার মিন্টু মিয়া

title
১৯ ঘন্টা আগে
শেরপুরের শ্রীবরদীতে ট্রিপল মার্ডারের ঘটনায় মিন্টু মিয়াকে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত দা-চাকুসহ গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আজ শুক্রবার (২৪ জুন) ভোরে শ্রীবরদীর খোশালপুর পুটল গ্রামের একটি গাছে লুকিয়ে থাকা অবস্থায় তাকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে নিশ্চিত করেছেন শ্রীবরদী থানার ওসি বিপ্লব কুমার বিশ্বাস। শ্বশুরবাড়িতে বোরকা পরে হামলা চালিয়ে স্ত্রী-শাশুড়িসহ ৩ জনকে হত্যার ঘটনার আসামি তিনি। ইতোপূর্বে ঘটনাস্থল থেকে তার ব্যবহৃত বোরকাটিও জব্দ করা হয়েছে। বিজ্ঞাপন গ্রেপ্তারকৃত মিন্টু মিয়া গেরামারা গ্রামের হাই উদ্দিনের ছেলে। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পারিবারিক দ্বন্দ্বের জের ধরে মিন্টু মিয়া গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে বোরকা পরে শ্বশুরবাড়িতে হাজির হন। তিনি দেশীয় ধারাল অস্ত্র নিয়ে অতর্কিতে হামলা চালিয়ে স্ত্রী, শ্বশুর, শাশুড়িসহ ৬ জনকে কুপিয়ে জখম করেন। রাতেই ৩ জন মারা যান। অন্য ৩ জনকে গুরুতর অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহতরা হলেন- মনু মিয়ার মেয়ে মনিরা বেগম (৪০), আসামির স্ত্রী শেফালী বেগম (৬০) ও মৃত নুর জামালের ছেলে মাহমুদ হাজী (৬৫)। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহতরা হলেন- জয়নাল আবেদীনের ছেলে মনু মিয়া (৭৫), তার ছেলে শাহাদাৎ হোসেন (৪০) এবং আহাদ আলীর স্ত্রী বাচ্চুনী বেগম (৫২)।