বিআরটিএ বৈঠক থেকে পণ্য পরিবহন নেতাদের ওয়াকআউট

title
১২ দিন আগে
জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির বিপরীতে গণপরিবহনে ভাড়া বাড়ানোর বৈঠক থেকে ওয়াকআউট করেছেন পণ্য পরিবহন সংশ্লিষ্ট নেতারা। আজ শনিবার বিকেল থেকে বিআরটিএ সদর দপ্তর বনানী কার্যালয়ে এ বৈঠক এখনো চলমান। বাংলাদেশ ট্রাক কাভার্ড ভ্যান মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক হোসেন মো. মজুমদার কালের কণ্ঠকে বলেন, আমরা মনে করি জ্বালানি তেলের এ মূল্যবৃদ্ধি অযৌক্তিক। এতে করে পরিবহনের ভাড়া অনেক বেড়ে যাবে। বিজ্ঞাপন যেটা ভোক্তাদের সঙ্গে বোঝাপড়ায় কঠিন হবে। তাই বৈঠক থেকে ওয়াক আউট করেছি। আমরা চাই জ্বালানি তেলের দাম কমানো হোক। তিনি বলেন, দেশে গণপরিবহনের চেয়ে পণ্য পরিবহনের গাড়ির সংখ্যা বেশি। সরকার শুধু গণপরিবহনে ভাড়া নির্ধারণ করে দেয়। পণ্য পরিবহনের ভাড়া গত ৫০ বছরে কখনো নির্ধারণ করা হয়নি। এটা ডিমান্ড সাপ্লাইয়ের ওপর নির্ভর করে ভাড়া ঠিক করা হয়। বৈঠকে সভাপতিত্ব করছেন বিআরটিএর চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ মজুমদার। উপস্থিত আছেন সড়ক ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব আমিন উল্লাহ নূরী, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ, কনজিউমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ক্যাব) প্রতিনিধি এবং পরিবহন মালিক ও শ্রমিক নেতারা। সূত্র মতে, বিআরটিএ সিটি সার্ভিসে ১৩ শতাংশ, দূরপাল্লায় ১৬ শতাংশ, লঞ্চে ২০ শতাংশ ভাড়া বাড়াতে চাচ্ছে। কিন্তু পরিবহন মালিক সমিতির দাবি সার্বিক ব্যয় বৃদ্ধি বিবেচনায় নিয়ে ৩০ শতাংশ ভাড়া বৃদ্ধি।