শেরপুরে স্ত্রীসহ ৩ জনকে কুপিয়ে হত্যা করল স্বামী

title
৪ দিন আগে
শেরপুরের শ্রীবরদীতে বোরকা পরে দা দিয়ে কুপিয়ে স্ত্রীসহ তিনজনকে হত্যা করেছে স্বামী। বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) রাত ৮টার দিকে উপজেলার পুটল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এমন বীভৎস ঘটনায় এলাকায় আতংক বিরাজ করছে। নিহতরা হলেন- স্ত্রী মনিরা বেগম (৩৫), শ্বাশুরি শেফালী বেগম (৫০) ও জ্যাঠা শ্বশুর মো. মাহামুদ (৬৫)। বিজ্ঞাপন তাদের সবাইকে হত্যা করেছে ঘাতক স্বামী মিন্টু মিয়া। এ ঘটনায় আহত হয়েছে স্ত্রী মনিরার ভাই শাহাদাৎ হোসেন ও নিহত মাহমুদের স্ত্রী ছাহেরা বেগম। নিহত মনিরা পুটল গ্রামের মনু মিয়ার মেয়ে। নিহতের পরিবার ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, পুটল গ্রামের মনু মিয়ার মেয়ে মনিরার সঙ্গে পার্শ্ববর্তী গেরামারা গ্রামের হাই উদ্দিনের ছেলে মিন্টু মিয়ার বিয়ে হয়। তাদের এক ছেলে ও এক মেয়ে সন্তান রয়েছে। সম্প্রতি দাম্পত্য কলহের জের ধরে মিন্টু বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে বোরকা পড়ে শ্বশুর বাড়িতে হামলা করে। এরপর দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে স্ত্রী মনিরা বেগমকে। এ সময় বাঁধা দিতে গেলে শ্বাশুরি শেফালী খাতুন, জ্যাঠা শ্বশুর মাহামুদ ও শ্যালক শাহাদৎকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে পার্শ্ববর্তী বকশিগঞ্জ হাসপাতালে নিয়ে গেলে শেফালী বেগম ও মাহমুদকে দায়িত্বরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। আহত শাহাদৎ ও ছাহেরা বেগমকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ সুপার হাসান নাহিদ চৌধুরি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।