ম্যারাডোনার আট চিকিৎসক, নার্সের বিচার হবে

title
৫ দিন আগে
২০২০ সালের ২৫ নভেম্বর হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা যান ম্যারাডোনা৷ সে সময় তার বয়স হয়েছিল ৬০৷ মৃত্যুর দুই সপ্তাহ আগে মস্তিস্কে রক্ত জমাট বাঁধায় তার অস্ত্রোপচার করা হয়েছিল৷ অস্ত্রোপচার শেষে তাকে আর্জেন্টিনার রাজধানী বুয়েনস আয়ার্সের একটি অ্যাপার্টমেন্টে নিয়ে যাওয়া হয়৷ সেখানেই তার মৃত্যু হয়৷ ম্যারাডোনার মৃত্যু তদন্তে আর্জেন্টিনার পাবলিক প্রসিকিউটর ২০ জন চিকিৎসা বিশেষজ্ঞের সমন্বয়ে একটি দল গঠন করেছিলেন৷ গতবছর তারা প্রতিবেদন জমা দেন৷ এতে তারা অভিযোগ করেন, ম্যারাডোনার চিকিৎসায় ‘ঘাটতি ও অনিয়ম' ছিল৷ ম্যারাডোনাকে উপযুক্ত জায়গায় চিকিৎসা দেয়া গেলে ‘তার বেঁচে থাকার ভালো সম্ভাবনা ছিল' বলে জানান তারা৷ এছাড়া ম্যারাডোনাকে সেবা দেয়া ব্যক্তিরা তার মৃত্যু পর্যন্ত ‘দীর্ঘ, যন্ত্রণাদায়ক সময়ের' জন্য তাকে তার ভাগ্যের উপর ছেড়ে দিয়েছিলেন বলেও মনে করেন বিশেষজ্ঞরা৷ মায়াভরা স্মৃতি ও বিতর্ক নিয়ে পর্দায় আসছেন মারাদোনা আর্জেন্টিনায় মারাদোনা-স্মরণ গত বছরের ২৫ নভেম্বর ৬০ বছর বয়সে মারা যান মারাদোনা৷ কয়েকদিন পর সেই দিনটিকে গভীর শোক ও শ্রদ্ধা নিয়ে স্মরণ করবে সারা বিশ্ব৷ তবে আর্জেন্টিনায় গত ৩০ অক্টোবর, অর্থাৎ জন্মদিনেও ভালোবাসায় সিক্ত হয়েছেন মারাদোনা৷ সেদিন সান্তা ক্লারা দেল মার-এ উন্মোচন করা হয় তার স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে তৈরি করা বিশাল এক ভাস্কর্য৷ মায়াভরা স্মৃতি ও বিতর্ক নিয়ে পর্দায় আসছেন মারাদোনা পর্দায় আসছেন সেই মারাদোনা ওপরের ছবিতে এক ভক্তের ক্যামেরায় সান্তা ক্লারা দেল মার-এ মারাদোনার ম্যুরালের ছবি হওয়ার মুহূর্ত৷ তবে এই মুহূর্তে সবার মনযোগের কেন্দ্রে রয়েছে আর্জেন্টিনাকে ১৯৮৬-র বিশ্বকাপ জেতানো মহাতারকার জীবনী নিয়ে তৈরি ছবি ‘মারাদোনা : ব্লেসড ড্রিম’৷ মায়াভরা স্মৃতি ও বিতর্ক নিয়ে পর্দায় আসছেন মারাদোনা পাঁচ দেশে চিত্রায়ন জন্ম আর্জেন্টিনায় হলেও মারাদোনার জীবনের খুব গুরুত্বপূর্ণ কিছু সময়ের সাক্ষী স্পেন, ইটালি, উরুগুয়ে এবং মেক্সিকো৷ তাই এই পাঁচ দেশেই হয়েছে ‘মারাদোনা : ব্লেসড ড্রিম’-এর শুটিং৷ ওপরের ছবিতে ফাইনালে জার্মানিকে ৩-২ গোলে হারিয়ে মারাদোনার ১৯৮৬-র বিশ্বকাপ উঁচিয়ে ধরার মুহূর্ত৷ বিশ্বকাপের সেই আসরটি হয়েছিল মেক্সিকোতে৷ মায়াভরা স্মৃতি ও বিতর্ক নিয়ে পর্দায় আসছেন মারাদোনা ‘চার মারাদোনা’ অ্যামাজন প্রাইম ভিডিওর জন্য তৈরি এ ধারাবাহিকে বুয়েনস আইরিসের বস্তিতে জন্ম নেয়ার পর থেকে শুরু করে হার্ট অ্যাটাকে মারা যাওয়ার সময় পর্যন্ত মারাদোনার জীবনের প্রতিটি উল্লেখযোগ্য পর্যায়কেই তুলে ধরার চেষ্টা হয়েছে৷ তাই চার বয়সের মারাদোনার চরিত্র রূপায়্নের জন্য বেছে নেয়া হয়েছে চারজন অভিনেতাকে৷ ওপরের ছবিতে অল্প বয়সি মারাদোনার চরিত্রে নাজারেনো কাসেরো৷ মায়াভরা স্মৃতি ও বিতর্ক নিয়ে পর্দায় আসছেন মারাদোনা দশ ঘণ্টায় সাফল্য আর বিতর্কে ভরা জীবন মাঠে ফুটবল প্রতিভার বিচ্ছুরণ, লাল কার্ড, হাতে গোল করা, মাদক সেবন ইত্যাদি নিয়ে বিতর্ক, সময়ে সময়ে অন্যায়ের বিরুদ্ধে নিজস্ব ভঙ্গিতে প্রতিবাদ- কী নেই মারাদোনার জীবনে! অ্যামাজন প্রাইম ভিডিওতে এক ঘণ্টা করে মোট দশটি পর্বে সবই দেখানো হবে৷ চিত্রনাট্য খোদ মারাদোনাই অনুমোদন করেছিলেন৷ তারপরও বিতর্কের আশঙ্কা থাকছেই৷ ওপরের ছবিতে (মাঝে) মারাদোনার চরিত্রে অভিনেতা নিকোলাস গোল্ডশ্মিড্ট৷ মায়াভরা স্মৃতি ও বিতর্ক নিয়ে পর্দায় আসছেন মারাদোনা সাবেক স্ত্রীর আপত্তি মারাদোনাকে নিয়ে ছবি হলেও শুধু তার অনুমোদনে বিতর্ককে দূরে রাখা যায়নি৷ ১০ ঘণ্টার এ ধারাবাহিকের কিছু দৃশ্য নিয়ে আপত্তি ছিল মারাদোনার সাবেক স্ত্রী ক্লাউডিয়া ভিলাফানে-র৷ এ কারণে আদালতেও গিয়েছিলেন তিনি৷ ক্লাউডিয়া জানিয়ে রেখেছেন, ধারাবাহিকটি দেখে যদি আরো কিছু ‘আপত্তিকর’ বিষয় পান, তাহলে আবার যাবেন আদালতে৷ শুক্রবার থেকে পর্দায় আসছে ‘মারাদোনা : ব্লেসড ড্রিম’৷ যে আটজনকে বিচারের মুখোমুখি হতে হবে তাদের মধ্যে আছেন ম্যারাডোনার পারিবারিক চিকিৎসক নিউরোসার্জন লেওপোল্ডো লুকু, সাইকিয়াট্রিস্ট অগুস্টিনা কোসাচোভ, সাইকোলজিস্ট কার্লস ডিয়াজ ও মেডিকেল কোঅর্ডিনেটর ন্যান্সি ফোর্লিনি৷ তারা সবাই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন৷ কোসাচোভের আইনজীবী জানিয়েছেন তারা আপিল করবেন৷ বিচার শুরুর তারিখ এখনও নির্ধারণ করা হয়নি৷ অভিযোগ প্রমাণিত হলে আট থেকে ২৫ বছর পর্যন্ত সাজা হতে পারে৷ জেডএইচ/কেএম (এএফপি, রয়টার্স)