প্যারিস মাতালেন জেমস

title
২ মাস আগে
দুপুর না গড়াতেই প্যারিসের উপশহর ‘স্তা’স্টেডিয়ামমুখী বাংলাদেশিরা৷ তাদের প্রিয় শিল্পীজেমস আসছেন শিল্প-সাহিত্য আর সংস্কৃতির শহরে৷ তিনি মঞ্চে উঠবেন সেই রাত ৯ টার দিকে৷ কিন্তু বিকাল ৩টা থেকেই প্রবাসীরা জড়ো হতে থাকেন ছোটউপশহর স্তায়! রোববার ছিল ফ্রান্স-বাংলাদেশ বন্ধুত্বের অর্ধশত বছরপূর্তি৷ এছাড়াও ওফিওরা প্রফেশনাল সার্ভিসের দশ বছরপূর্তিকে উদযাপন করবার লক্ষ্যে সংগীত অনুরাগী প্রবাসী বাংলাদেশিদের এমন স্রোত স্টেডিয়াম অভিমুখে৷বাঁধভাঙা উচ্ছাস ছড়িয়ে পড়ে উৎসব এলাকা ঘিরে৷ ২০১৪ সালে জার্মানির ফ্রাঙ্কফুর্টে বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে প্রবাসীদের আয়োজিত কনসার্টে জেমস এই আয়োজনের উদ্যোক্তা ফ্রান্সের তরুণ রাজনীতিবিদএবং স্থানীয় মিউনিসিপ্যালে নির্বাচিত কাউন্সিলর বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ফরাসিকৌশিক রাব্বানী খান৷ ফ্রান্স এবং বাংলাদেশের মধ্যকার পঞ্চাশ বছর পূর্তি উৎসব পালনে সহযোগিতায় ছিলপ্যারিসেরবাংলাদেশ দূতাবাস এবং স্থানীয় স্তা শহরের মেয়র এবং মেইরি৷ নানা আয়োজন থাকলেও উদযাপনের মূল আকর্ষণ ছিলেন নগর বাউল জেমস৷ পাশাপাশি জনপ্রিয় ব্যান্ডদল শিরোনামহীনও মাতিয়েছেন প্রবাসীদের৷ যুক্তরাষ্ট্র থেকে এসেছেন সাম্প্রতিককালের‘আইলারে নয়া দামান’খ্যাত শিল্পী মুজা৷ এই আয়োজনে জড়ো হনপাঁচ থেকে ছয় হাজার বাংলাদেশি৷ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের শুরুতে আয়োজক রাব্বানী খানের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন ফ্রান্সে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত খন্দকার এম তালহা, স্থানীয় স্তা শহরের মেয়র তাইবি আজিদিন৷ শিল্পীদের কেন টাকা নেই? সাবিনা ইয়াসমিন সঙ্গীতা বলেন, সাউন্ডটেক বলেন, এদের অ্যালবাম বিক্রির উপর কোনো ভাগ আমরা কোনোদিনও পাইনি৷ এককালীন একটা লামসাম দিয়ে দিতো৷ শিল্পীদের কোটি টাকা সবাই লুটেপুটে খাচ্ছে৷ কারা খাচ্ছে আমি জানি না৷ আমাদের আয়ের কিছুই নাই এখন৷ ইউটিউবে আমার হাজার হাজার গান আছে, কোনেকিছুই জানি না কারা আপলোড করছে৷ রয়্যালটির টাকা মেরেকেটে না খেলে কি আমাদের কারো কাছে হাত পাততে হয়? শিল্পীদের কেন টাকা নেই? আসিফ আকবর আমাদের দেশে কোন কপিরাইট সোসাইটি নাই, শিল্পীদের কোনো ঐক্য নাই৷ ৪৮ বছরেও আমরা ঐক্যবদ্ধ হতে পারি নাই যে কারণেই এই ঘটনাগুলো ঘটছে৷ বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলে যে রিয়েলিটি শো হয়, বিভিন্ন এফ এম চ্যানেলে আমাদের গান বাজে সেখান থেকে শিল্পী, সুরকার, গীতিকারের ভাগটা কী, সেটা নিয়ে আমাদের কোন নীতিমালা নাই৷ যতদিন পর্যন্ত শিল্পীরা ঐক্যবদ্ধ না হবে ততদিন কোন সমাধান হবে না৷ শিল্পীদের কেন টাকা নেই? নকিব খান প্রত্যেকটা শিল্পী শেষ বয়সে এসে কষ্ট পায় এবং চিকিৎসার জন্য যখন অর্থ দরকার হয় তখন দুস্থ শিল্পী হয়ে যায়৷ সব শিল্পীরা মিলে তাকে সাহায্য করতে হয়, এটা খুবই দুঃখজনক, করুণ একটা ব্যাপার, আমাদের শিল্পীদের খুবই কষ্টের একটি জায়গা৷ আমাদের সৃষ্ট গানের কিছুই আমরা পাই না৷ কোম্পানিগুলোতে যারা আছে তারা হয়তো কিছু আয় করছে৷ আমাদের পাশের দেশে ভারতে শিল্পীরা রয়্যালটি পায়, সেজন্য তাদের এতো অভাব থাকে না৷ শিল্পীদের কেন টাকা নেই? কুদ্দুস বয়াতী আমাদের শিল্পীরা মরলে পরে শহীদ মিনারে নিয়া ফুলের মালা দেয়৷ থাকলে দেখে না, কেউ নাই৷ এটা এখন প্রমাণিত৷ আমাদের শিল্পীদের এখন আয় নাই৷ মোবাইল, ইউটিউবের জন্য এক একজন আসে (গান রেকর্ড) করে দুই-তিন হাজার টাকা দেয়৷ ক্যামেরা করে তারা রেখে দেয়, তারপর ইউটিউবে চালায়৷ আমাদের লোকশিল্পীরা খুব কষ্টের মধ্যে আছে৷ যন্ত্রশিল্পীরা স্টুডিওতে বাজিয়ে একটা গানের জন্য মাত্র দুই হাজার টাকা পায়৷ শিল্পীদের কেন টাকা নেই? প্রীতম আহমেদ অনুদান নয় বরং অনিয়ম বন্ধ করার কার্যকর নির্দেশ প্রয়োজন৷ অন্তত একটি মামলার আদালতের রায় প্রয়োজন৷ অবৈধ ভাবে অনুমতিহীন গান বিক্রি বন্ধ করার নির্দেশনা প্রয়োজন৷ তাহলেই অপরাধীরা শিল্পীদের টাকা লুট করা বন্ধ করবে৷ দ্বিতীয়ত, আন্তর্জাতিক বাজারের সাথে মিল রেখে শিল্পীদের ৭০% রয়েলিটি নিশ্চিত করতে হবে৷ তবেই একজন শিল্পী সুস্থ ও সচ্ছল জীবন যাপন করতে পারবে৷ শিল্পীদের কেন টাকা নেই? খুরশীদ আলম সিএনজিওয়ালাদের সংগঠন আছে বলেই যখন ইচ্ছা তখন সিএনজি বন্ধ করে দিচ্ছে৷ বাস মালিকদের সংগঠন আছে, তারা যখন ইচ্ছা বাস বন্ধ করে দিচ্ছে৷ আমাদের সংগঠন নাই, আমরা পারছি না৷আমাদের এভাবেই চলতে হবে৷প্রেসিডেন্টের বেতন বাড়ে, প্রধানমন্ত্রীর বেতন বাড়ে, সচিবের বাড়ে, মন্ত্রীর বাড়ে, এমপির বাড়ে, প্রধান বিচারপতির বাড়ে, কিন্তু শিল্পীদের পেমেন্ট বাড়ানো হয় না৷ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু একটা রেট দিয়ে গেছেন সেটাই এখানো চলছে৷ শিল্পীদের কেন টাকা নেই? ব্যরিস্টার তানজীব উল আলম একজন শিল্পী যখন গানের জন্য স্টুডিও’র সঙ্গে চুক্তি করেন তখন তারা এককালীন পেমেন্ট নিয়ে পুরো গানটাই দিয়ে দেন স্টুডিওকে৷শিল্পীরা যদি আরেকটু বুদ্ধিমান হতেন তাহলে তারা একবারে টাকা না নিয়ে প্রতিবার প্লে’র জন্য তার সম্মানি চাইতে পারতেন৷যেটা পৃথিবীর অন্যান্য দেশে হয়৷ওইসব দেশে কিন্তু পারফর্মিং আর্ট সোসাইটি স্টুডিও’র সঙ্গে শিল্পী নেগোসিয়েশনের কাজটা করে৷আমাদের দেশের শিল্পীরা এই বিষয়ে অবগত না৷ লেখক: ফয়সাল শোভন