অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীকে এই ১১ অ্যাপ মুছে ফেলতে হবে

title
এক মাস আগে
টেকশহর কনটেন্ট কাউন্সিলর: অ্যাপসেনসাস নামের একটি কোম্পানির নিরাপত্তা বিশ্লেষক দল ডাটা হার্ভেস্টিং কার্যক্রমের মাধ্যমে ভাইরাসযুক্ত ১১ অ্যাপ শনাক্তের পর তালিকা প্রকাশ করেছে। ওয়ালস্ট্রিট জার্নালের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কমপক্ষে ৬০ মিলিয়ন ব্যবহারকারী ভাইরাসযুক্ত অ্যাপগুলো তাদের ডিভাইসে ইনস্টল করেছে। এই অ্যাপগুলো হচ্ছে- স্পিড ক্যামেরা রাডার, আল-মোয়াজিন লিট (প্রেয়ার টাইমস), ওয়াইফাই মাউস (রিমোট কন্ট্রোল পিসি), কিউআর অ্যান্ড বারকোড স্ক্যানার (অ্যাপসোর্স হাবের তৈরি), কিউবলা কম্পাস-রামাদান ২০২২, সিম্পল ওয়েদার অ্যান্ড ক্লক উইজেট (ডাইফারের তৈরি), হ্যান্ডসেন্ট নেক্সট এসএমএস-টেক্সট উইথ এমএমএস, স্মার্ট কিট ৩৬০, আল কোরআন এমপিথ্রি-৫০ রেসিটারস অ্যান্ড ট্রান্সলেশন অডিও, ফুল কোরআন এমপিথ্রি-৫০+ল্যাঙ্গুয়েজ অ্যান্ড ট্রান্সলেশন অডিও, অডিওসড্রয়েড অডিও স্টুডিও ডিএডবিøউ। বিপুল পরিমান ম্যালওয়্যার ছড়িয়ে দিতে এই ডাটাগুলো ব্যবহার করা হয়। এছাড়া আরো কিছু বেনামী অ্যাপও ভয়াবহ এই ভাইরাস বহন করছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে এই অ্যাপগুলোর নাম কেন প্রকাশ করা হয় নি সে বিষয়টি এখনো পরিস্কার নয়। আপাতত দৃষ্টিতে মনে হচ্ছে ২০২১ সালের অক্টোবরে বিষয়টি জানার পর গুগল সঠিক পদক্ষেপই নিয়েছে। মূলত ব্যবহারকারীদের ওপর গুপ্তচরবৃত্তি করছে এমন অভিযুক্ত সব ধরনের নামহীন এবং নামযুক্ত অ্যাপ ২৫ মার্চের মধ্যেই প্লে স্টোর থেকে মুছে ফেলেছে গুগল। তবে ধারণা করা হচ্ছে ডিভাইসগুলোয় এরইমধ্যে ইনস্টল হওয়া এসব অ্যাপ এখনো চলছে। তবে উদ্বেগের বিষয় হচ্ছে এই ১১টি অ্যাপ বিনামূল্যেই চলছে। এই অ্যাপগুলো সক্রিয় গুগল প্লে তালিকার সঙ্গে যুক্ত না করার পাশাপাশি যেকোন সময় ডাউনলোড করা থেকেও বিরত থাকার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। আগে যারা এই অ্যাপগুলো ইনস্টল করেছেন তাদেরকে এগুলো মুছে ফেলতে হবে। ফোনঅ্যারেনা/আরএপি