সিলেটে সুরমা নদীর পানি কমলেও বেড়েছে কুশিয়ারায়

title
২ দিন আগে
সিলেটে সুরমা নদীর পানি সামান্য কমলেও, কুশিয়ারা পাড়ের ১১টি ও মৌলভীবাজারের ৫ উপজেলায় বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। কুশিয়ারা নদীর বাঁধ উপচে মহাসড়ক ও কুলাউড়ায় রেল লাইন তলিয়ে যাওয়ায় যোগাযোগ ব্যাহত হচ্ছে। নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হওয়ায় বিভিন্ন আশ্রয় কেন্দ্রেও ঢুকছে বানের পানি। বাসভাসি মানুষ উঁচু বাঁধে আশ্রয় পেলেও ভুগছে ত্রাণ সংকটে। সিটি কর্তৃপক্ষ বলছে, এত বেশি মানুষকে আশ্রয় ও খাবার দিতে হিমশিম খাচ্ছে তারা। সিলেটে সুরমা নদীর পানি কিছুটা কমলেও এখনও দুই পয়েন্টেই পানি বিপদসীমার উপরে। তবে মহানগরীর উঁচু এলাকার বন্যার পানি সামান্য কমেছে। সিলেট শহরের অভিজাত এলাকা নামে পরিচিত শাহজালাল উপশহর, জিন্দাবাজার,তালতলা, শেখঘাট, চাঁদনীঘাটসহ বিভিন্ন এলাকায় সড়কে এখনও পানিতে নিমজ্জিত। নামেনি বাসা-বাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের পানিও। কুশিয়ারা নদীর পানি সবকটি পয়েন্টে বৃদ্ধি পাওয়ায় একাধিক ভাঙ্গণ দিয়ে ও বন্যা প্রতিরক্ষা বাঁধ উপচে বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়ে লোকালয়ে গ্রামের পর গ্রাম, সড়ক, বাজার ও রাস্তাঘাট নতুন করে পানিতে তলিয়ে গেছে। স্রোতে বাঁধ ভেঙ্গে ঢাকা-মৌলভীবাজার-সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়ক পানির নিচে তলিয়ে গেছে। এতে এ মহাসড়কে ব্যাহত হচ্ছে যোগাযোগ। পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে যে কোন সময় এ সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যেতে পারে। এই সড়ক রক্ষার্থে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য স্থানীয় প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন এই জনপ্রতিনিধি। এ রকম মহাপ্লাবনের জন্য প্রস্তুত ছিলেন না জানিয়ে মেয়র বলেন, এই দুর্যোগ কেটে উঠতে সময় লাগবে।