জেমস হেটফিল্ডের জন্মদিন আজ

title
১৫ দিন আগে
আজ জেমস হেটফিল্ডের ৫৯তম জন্মদিন। থ্রাশ মেটাল ভক্তদের কাছে খুবই জনপ্রিয় একটি নাম জেমস হেটফিল্ড। যার কণ্ঠে জনপ্রিয়তা পেয়েছে মাস্টার অব পাপেটস, নাথিং এলস ম্যাটারস, ফুয়েল, সুইসাইড অ্যান্ড রিডেম্পশন, টু লিভ ইজ টু ডাই, দ্য একস্ট্যাসি অব গোল্ড, আনফরগিভেন এর মতো জনপ্রিয় সব গান। বিশ্বখ্যাত মেটালিকা ব্যান্ডের ভোকাল হেটফিল্ডের জন্মদিন আজ। জেমস হ্যাটফিল্ডের বিখ্যাত উক্তি আই চ্যুজ টু লিভ নট জাস্ট এক্সিস্ট আজ প্রতিটি পদেই সত্য প্রমাণিত হয়েছে। তাই আজো তিনি মেটাল জনরায় এক ও অদ্বিতীয়। মেটালিকাকে তিনি নিয়ে গেছেন বিশ্বমানের কাতারে। তাই আজও মেটালিকার সাথে জড়িয়ে আছে হেটফিল্ডের নাম। ১৯৬৩ সালে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়াতে আজকের এই দিনে জন্মগ্রহণ করেন জেমস। মূলত তিনি জার্মান, ইংরেজি, আইরিশ ও স্কটিশ বংশদ্ভুত। তার বাবা ভার্জিল ছিলেন একজন ট্রাক ড্রাইভার এবং মা সিনথিয়া ছিলেন অপেরা গায়িকা। সঙ্গীতে হেটফিল্ডের হাতেখড়ি হয় মাত্র ৯ বছর বয়সে পিয়ানোর মাধ্যমে। আর ১৬ বছর বয়স থেকে বাজাতে শুরু করেন গিটার। সে সময়ই বেশ কিছু লোকাল ব্যান্ডের সাথে পারর্ফম করেন জেমস। তবে কোনোটিতেই যেনো নিজেকে ঠিক প্রমাণ করতে পারছিলেন না। একদিন হঠাৎ করেই তার নজর পড়ে স্থানীয় একটি পত্রিকার বিজ্ঞাপনে। যেখানে ড্রামার লারস উলরিক একজন গিটারিস্ট চেয়ে বিজ্ঞাপন দিয়েছিলেন। ওই বিজ্ঞাপনে হেটফিল্ড সাড়া দেন আর এরপরই তিনি যুক্ত হন মেটালিকার সাথে। প্রথম দিকে গিটারিস্ট হিসাবে যুক্ত হলেও পরবর্তীতে যোগ করেন গায়কীও। এরপর একে একে সেখানে যোগ দেন ম্যাক গভনি এবং ডেভ মাস্টেইন। তবে বেশিদিন টেকেনি এ লাইন-আপ। পরবর্তীতে  ম্যাক গভনি এবং ডেভ মাস্টেইন এর জায়গায় সেখানে যোগ দেন ক্লিফ বার্টন ও কার্ক হেমেট। সে সময় ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায় তদের কিল এম অল, রাইড দ্য লাইটেনিং ,মাস্টার অব পাপেটস এর মত অ্যালবামগুলো। তবে ক্লিফ এর মৃত্যুর পর ব্যান্ডে যুক্ত হন জেসন নিউস্টেড। আর এরপর বাকিটা ইতিহাস। বরাবরই স্টেজের বাইরেই বেশি আলোচনায় ছিলেন হেটফিল্ড। যার মূল কারণ অ্যালকোহল আসক্তি। অতিরিক্ত অ্যালকোহল আসক্তির কারণে হেটফিল্ডকে যেতে হয়েছে রিহ্যাবেও। তবে এতোকিছুর পরও একমুহূর্তের জন্যও ভেঙ্গে পড়েননি তিনি। বরং রিহ্যাব থেকে ফিরে এসে মেটালিকার সাথে একটি নতুন অধ্যায় শুরু হয় হেটফিল্ডের। প্রায় ৩৯ বছরের তার এ মেটাল যাত্রায় তিনি অর্জন করেছেন বেশ কিছু উল্লেখযোগ্য অ্যাওয়ার্ড। ২০০৯ সালে জয়েল ম্যাকলেভারস বুক অনুসারে হেটফিল্ড বিশ্বের শ্রেষ্ঠ ১০০ মেটাল গিটারিষ্টের মধ্যে ৮ম স্থান পান। এছাড়াওহিট প্যারাডার এর তালিকায় বিশ্বের শ্রেষ্ঠ ১০০ মেটাল ভোকালিস্টের তালিকায় ২৪তম স্থান পান তিনি। শুধু তাই নয় ৯বার গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ডস পেয়েছেন ৫৩ বছর বয়সী এ মেটাল তারকা। আজ তার জন্মদিনে যমুনা নিউজের পক্ষ থেকে রইলো শুভেচ্ছা। শুভ জন্মদিন জেমস হেটফিল্ড। /এসএইচ