আফগানিস্তানে ভূমিকম্পে হাজারের বেশি মৃত্যু, চলছে উদ্ধার অভিযান

title
৫ দিন আগে
ছবি: সংগৃহীত ভূমিকম্পে বিপর্যস্ত আফগানিস্তানে চলছে নিখোঁজদের সন্ধান। ধ্বংসস্তূপ সরিয়ে বের করে আনা হচ্ছে একের পর এক মরদেহ। বুধবার আঘাত হানা ভূমিকম্পে দেশটিতে প্রাণ গেছে ১ হাজারের বেশি মানুষের। খবর আলজাজিরার। এখনও নিখোঁজ রয়েছে দেড় হাজারের বেশি মানুষ। প্রাণহানি আরও বাড়বে বলে আশঙ্কা কর্তৃপক্ষের। প্রত্যন্ত গ্রাম ও দুর্গম পাহাড়ি এলাকাগুলোয় এখনও শুরু হয়নি উদ্ধার তৎপরতা। হাজার হাজার বাড়িঘর বিধ্বস্ত হওয়ায় খোলা আকাশের নিচে বহু মানুষ। ত্রাণ ও উদ্ধার কার্যক্রমে যোগ দিয়েছে রেডক্রসসহ বেশ কিছু আন্তর্জাতিক সংস্থা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও আফগান সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত ছবি-ভিডিওতে ভূমিকম্পে বিধ্বস্ত হওয়া বাড়িঘর এবং স্ট্রেচারে আহত ব্যক্তিদের নিয়ে স্থানীয় মানুষকে ছোটাছুটি করতে দেখা যায়। উদ্ধারকাজে হেলিকপ্টার মোতায়েন করেছে তালেবান সরকার। ছবি ও ভিডিওতে আহত অনেককে সামরিক হেলিকপ্টারে করে সরিয়ে নিতে দেখা গেছে। বুধবার (২২ জুন) ভোরের আলো না ফুটতেই ভূমিকম্পের ধাক্কায় কেঁপে ওঠে আফগানিস্তান। দেশটির পূর্বাঞ্চলের পাকতিকা প্রদেশে অনুভূত হয় ৬.১ মাত্রার কম্পন। মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা বলছে, খোস্ত শহরের ৪৪ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে ছিল এর উৎপত্তিস্থল; গভীরতা ৫১ কিলোমিটার। উল্লেখ্য, ২০০২ সালের পর আফগানিস্তানে এটাই সবচেয়ে প্রাণঘাতী ভূমিকম্প। ওই বছর ২৫ মার্চ দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় বাঘলান প্রদেশে ৬ দশমিক ১ মাত্রার ভূমিকম্পে হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছিল। সর্বশেষ ২০১৫ সালের ২৬ অক্টোবর পাকিস্তান-আফগানিস্তান সীমান্তে আঘাত হানা ৭ দশমিক ৫ মাত্রার ভূমিকম্পে প্রায় ৪০০ জনের প্রাণ যায়। ইউএইচ/