জ্বালানি তেলের দাম বাড়ার কারণ জানালেন প্রতিমন্ত্রী

title
১০ দিন আগে
বাংলাদেশ প্রতিবেদক: এক লাফে জ্বালানি তেলের দাম বেড়ে গেছে প্রায় ৫০ শতাংশ। শুক্রবার রাতে জ্বালানি ও খনিজসম্পদ বিভাগ থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সব ধরনের জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির তথ্য জানানো হয়। হঠাৎ এই সিদ্ধান্তের কারণ জানিয়েছেন বিদ্যুৎ ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। গতরাতে জ্বালানি মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে প্রতিমন্ত্রীর উদ্ধৃতি দিয়ে বলা হয়, নিরুপায় হয়েই জ্বালানির দাম কিছুটা সমন্বয়ে করতে হচ্ছে।বিবৃতিতে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘জনবান্ধব আওয়ামী লীগ সরকার সব সময় আমজনতার স্বস্তি ও স্বাচ্ছন্দ্য বিবেচনা করে সিদ্ধান্ত নেয়। যত দিন সম্ভব ছিল, তত দিন সরকার জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর চিন্তা করেনি। অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে অনেকটা নিরুপায় হয়েই দাম কিছুটা সমন্বয়ে যেতে হচ্ছে।তিনি বলেন, ২০১৬ সালের এপ্রিল মাসে সরকার জ্বালানি তেলের দাম কমিয়ে দিয়েছিল। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে সে অনুযায়ী জ্বালানি তেলের দাম পুনর্বিবেচনা করা হবে।এর আগে রাত ১০টায় জ্বালানি মন্ত্রণালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, এখন থেকে ডিজেলের দাম হবে প্রতি লিটার ১১৪ টাকা, যা এত দিন ৮০ টাকা ছিল। কেরোসিনের দামও একই হারে বাড়ানো হয়েছে। নতুন দাম ডিজেলের সমান, অর্থাৎ ১১৪ টাকা।বাড়ানো হয়েছে পেট্রল ও অকটেনের দামও। পেট্রলের নতুন দাম প্রতি লিটার ১৩০ টাকা, যা এত দিন ৮৬ টাকা ছিল। অকটেনের দাম ৮৯ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১৩৫ টাকা করা হয়েছে।দিবাগত রাত ১২টার পর থেকেই নতুন দাম কার্যকর হয়েছে।