রংপুরে ধর্ষণের দায়ে ৩ জনের যাবজ্জীবন, মূল আসামী পলাতক

title
এক মাস আগে
জয়নাল আবেদীন: রংপুরে একটি ধর্ষন মামলা দায়ের করার দীর্ঘ ১৫ বছর পর মামলার তিন আসামীকে যাবজ্জীবন কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত। তবে মুল আসামী পলাতক রয়েছে । আজ রোববার দুপুরে রংপুর নারী শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালত-১ এর বিচারক মোস্তফা কামাল এই রায় ঘোষণা করেন।দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন রংপুর নগরির এরশাদ নগর এলাকার মোঃ আব্দুল জলিলের পুত্র আসাদুল ইসলাম, আউয়াল মিয়ার পুত্র রঞ্জু মিয়া ও কেডিসি রোড এলাকার আব্দুস ছাত্তারের পুত্র বাবু মিয়া। রায় ঘোষণার সময় দুই আসামী আদালতের কাঠগড়ায় উপস্থিত থাকলেও মামলার মূল আসামী বাবু মিয়া পলাতক ছিলেন।মামলা সূত্রে জানা গেছে ২০০৭ সালের ২৬ মে রংপুর নগরীর তাজহাট টিবি হাসপাতাল সংলগ্ন বস্তি থেকে জনৈকা যুবতি রিকশাযোগে মর্ডাণ মোড়ে যাচ্ছিল। পথে বাবু মিয়া ও তার সহযোগীরা রিকশার গতি রোধ করে তাকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় ধর্ষিতা নিজেই বাদি হয়ে বাবু মিয়াকে প্রধান আসামী করে তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা করে। মামলার তৎকালিন তদন্ত কর্মকর্তা আজিজুল ইসলাম আদালতে চার্জশিট প্রদান করেন। সাক্ষ প্রমান শেষে আদালতের বিচারক তিনজনকে যবজ্জীবন কারাদন্ড ও একলাখ টাকা জরিমানার আদেশ দেন।সরকারি পক্ষের আইনজীবী পিপি রফিক হাসনাইন জানান, সাক্ষ্য প্রমান শেষে আদালত ৩ আসামীকেই যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রদান করেছেন। রায়ে বাদি সন্তষ্ট।